নিজেই বিকাশ পিন রিসেট করে নিন – একদম সিম্পল

বিকাশ পিন রিসেট

বিকাশ পিন রিসেটনিজেই বিকাশ পিন রিসেট করে নিন, বন্ধুরা আশাকরি সবাই ভালো আছেন। বিকাশ সম্পর্কে আমরা কমবেশি সকলেই পরিচিত। নতুন করে পরিচয় দেওয়ার কোন প্রয়োজন নেই বলে, আমি মনে করি। একটা সময় ছিল মানুষ ব্যাংকিং লেনদেনে সীমাবদ্ধ ছিল।

কিন্ত এখন নিত্যদিনের লেনদেন, অনলাইন পেমেন্ট, মোবাইল রিচার্জসহ সকল কাজে বর্তমানে ব্যবহার হচ্ছে বিকাশ। অনলাইন নির্ভর বর্তমান বিশ্বে বিভিন্ন ওয়েবসাইটের পাসওয়ার্ড মনে রাখার ঝামেলায়, আপনার বিকাশ একাউন্টের পাসওয়ার্ডটি ভুলে যাওয়াটাই স্বাভাবিক।

কিছুদিন আগেও বিকাশের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে ফোন নিয়ে যেতে হতো বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে। আর সেখানে তাদেরকে সঠিক তথ্য দিয়ে বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বারটি Reset বা পূনরুদ্ধার করে নিতে হতো। এই ঝামেলা এড়াতে বর্তমানে বিকাশ এ নিয়মে পরিবর্তন আনায় বিকাশের শুধুমাত্র কোড ডায়াল করেই পিন Reset করে নেওয়া সম্ভব।

এজন্য আপনার যা যা দরকার
যে আইডি/ড্রাইভিং লাইসেন্স/পাসপোর্ট দ্বারা আপনার বিকাশ একাউন্টটি খোলা হয়েছে সে আইডি কার্ড।

পিন ভুলে যাওয়া সিম সহ একটি মোবাইল।
আপনার সেই বিকাশ একাউন্টের সর্বশেষ ৯০ দিনের মধ্যের যেকোনো লেনদেনের তথ্য। সেটি হতে পারে- মোবাইল রিচার্জ, ক্যাশ আউট, অথবা ক্যাশ ইন। আপনি যদি কোনো লেনদেনই না করে থাকেন সর্বশেষ ৯০ দিনের মধ্যে। আপনি যদি কোন লেনদেন না করে থাকেন তাহলেও সমস্যা নেই। সঙ্গে থাকুন নিচে তার সমাধান বলে দিব।

পিন রিসেটের পর নতুন পিন সেট করার নির্দেশাবলী:
পিন নাম্বারটি ৫ ডিজিটের হতে হবে।
পিন নাম্বার দেয়ার সময় শুধু সংখ্যা ব্যবহার করতে হবে।

নতুন পিন নাম্বার সেট করার ক্ষেত্রে সর্বশেষ ব্যবহৃত তিনটি পিনের কোনোটিই ব্যবহার করা যাবে না।
পর-পর তিন বার ভুল পিন টাইপ করলে, পিন লক হয়ে যাবে।
পিন নাম্বারের প্রথম সংখ্যাটি শূন্য (০) টাইপ করা যাবে না।

৮ ঘণ্টার মধ্যে দুই বার পিন পরিবর্তন করা যাবে না।
ধারাবাহিক ডিজিটের নাম্বারগুলো পিন নাম্বার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না; যেমন 11111, 22222, 12345, 23456, 98765, 87654, 54321 ইত্যাদি।

বিকাশের পিন রিসেট করার জন্য আপনাকে যা করতে হবে

আপনাকে প্রথমে ডায়াল করতে হবে *247#

তারপর বিকাশের একটি নতুন মেন্যু চলে আসবে।
এখন আপনি নিচে দেখতে পারবেন ৯ নাম্বার

অপশনে 9. Reset pin
এখন আপনি 9 টাইপ করে Send করুন।

9 টাইপ করে Send করার পর এখানে আপনাকে এনআইডি, পাসপোর্ট অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্সের নাম্বার দিতে বলবে।

আপনি যে তথ্য দিয়ে আপনার বিকাশ একাউন্ট খুলেছেন, সেটির নাম্বার দিন।
আপনি যদি এনআইডি দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলেন, তাহলে এনআইডি কার্ডের নাম্বারটি দিবেন।

এনআইডি কার্ডের নাম্বার দেওয়া শেষ হয়ে গেলে, আপনাকে আপনার এনআইডি কার্ড অনুযায়ী জন্মসালটি এখানে দিতে হবে।

এরপর আপনাকে সর্বশেষ ৯০ দিনের লেনদেনের যেকোনো একটি তথ্য দিতে হবে। আপনি যদি একাধিক লেনদেন করেন, সেক্ষেত্রে যেকোনো একটি লেনদেন পছন্দ করে দিতে পারেন।

আপনি যদি সর্বশেষ ৯০ দিনের মধ্যে কোনো প্রকার লেনদেন না করে থাকেন, তাহলে একটু নিচে লক্ষ্য করুন 7. No transaction. আপনি 7 সেটি টাইপ করে Send করুন।

এখানে Send cash এর তথ্য দিয়ে আমি দেখাব, সেজন্য আমি এখানে 1 টাইপ করে Send করছি। আপনি আপনার পছন্দ অথবা প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করবেন।

তারপর আমি যে টাকা সেন্ড মানি করেছি সে তথ্য দিবো।

আমি গত ৯০ দিনের মধ্যে ১০ টাকা সেন্ড মানি করেছি, সেজন্য এখানে ১০ লিখে Send করলাম।

সঠিক ভাবে টাকার পরিমাণ লিখে Send করার পর আপনার মোবাইলে কিছু সময়ের মধ্যে একটি এসএমএস আসবে।

এই মেসেজের মাধ্যমে আপনাকে ৫ ডিজিটের একটি অস্থায়ী পিন পাঠিয়ে দেবে বিকাশ কর্তৃপক্ষ।

যার মাধ্যমে আপনি পিন পুনরায় সেট করতে হবে। এই তথ্যটি আপনি মনে রাখুন।

তারপর আপনি আবার *২৪৭# টাইপ করে ডায়াল করুন।

এরপর আপনি নিচের মতো একটি মেন্যু দেখতে পাবেন 1. My Bkash নামে। এখানে আপনি 1 তুলে Send করুন।

এরপর দেখতে পাবেন 1. Change Mobile Menu Pin.

আপনি আবার 1 টাইপ করে Send করুন।

তারপর আপনাকে এখানে পুরাতন পিন অথবা Old pin দিতে বলবে।

আপনি এখানে মেসেজে পাওয়া ৫ ডিজিটের পিন নাম্বারটি দিন, এবং তারপর Send এ ক্লিক করুন।

এরপর আপনাকে ৫ সংখ্যার পিন দিতে হবে।
আপনাকে অবশ্যই এখানে কঠিন পাসওয়ার্ড দিতে হবে। অন্যথায় সেটি গ্রহণ করবে না।
আপনি এখানে 12345, 54321, 11111,22222,01234, ইত্যাদি পাসওয়ার্ড দিবেন না।

তাহলে কিন্তু সেটি এখানে Support করবে না। আপনি এখানে অবশ্যই কঠিন পাসওয়ার্ড দিবেন, যেমনঃ 16222, 85647ইত্যাদি। এবং পরবর্তীতে সেটি আবার পরিবর্তন করতে পারবেন বিকাশের মেন্যু থেকে।

উল্লেখ্য আবশ্যক যে, বারবার পিন পরিবর্তনের চেষ্টা করলে আপনাকে কিছুক্ষণ পর টেষ্টা করার জন্য বলা হতে পারে। সেক্ষেত্রে আপনি কয়েকঘন্টা পর অথবা পরের দিন বিকাশের পিন নতুন করে সেট করতে পারেন।

পিন রিসেটের ৭২ ঘন্টার মধ্যে আপনাকে নতুন পিন সেট করতে হবে।
পিন রিসেট করে নতুনভাবে পিন সেট করলে নিচের মতো দেখাবে।

এখন আপনার কাজ শেষ।
ব্যাস হয়ে গেলো আপনার বিকাশের পিন রিসেট করা। এখন আপনি বিকাশের কোড ডায়াল করে আপনার কাজ চালিয়ে যেতে পারবেন।

 

নিজেই বিকাশ পিন রিসেট করে নিন

Check Also

হ্যাপি নিউ ইয়ার ২০২১

হ্যাপি নিউ ইয়ার পিক ২০২১

হ্যাপি নিউ ইয়ার পিকচার ২০২১ হ্যাপি নিউ ইয়ার পিকচার সকলকে ইংরেজি নতুন বছরের শুভেচ্ছা। এই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *