Those who do not get infected

কিছু মানুষ কখনোই করোনায় আক্রান্ত হবেন না। সম্প্রতি এমনি তথ্য জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের মতে করোনায় আক্রান্ত না হওয়া অনেকের শরীরে এমন ‘টি-সেল’ রয়েছে যা এই ভাইরাসকে প্রতিহত করতে সক্ষম।

সাইন্স ম্যাগাজিন’র একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, বিজ্ঞানীরা বলছেন, সম্ভবত এসব ব্যক্তি অন্য কোনো করোনাভাইরাস দ্বারা এর আগে সংক্রমিত হয়েছিল। তাদের মতে, মৃদু উপসর্গ থাকা ব্যক্তির শরীরেও এমন ‘টি-সেল’ এবং ‘অ্যান্টিবডি’ তৈরি হতে পারে, যেটি তাকে ভবিষ্যৎ সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে সক্ষম।

গবেষণায় মোট ৪০ জনের রক্তের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাদের মধ্যে ২০ জন করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সেরে উঠেছে। বাকি ২০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল ২০১৫ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে। অর্থাৎ এই ২০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নয়।

গবেষণায় দেখা গেছে, করোনা থেকে সেরে উঠা ২০ জনের শরীরেই শ্বেত রক্তকণিকা এবং অ্যান্টিবডির উপস্থিতি রয়েছে। কিন্তু ২০১৫ থেকে ২০১৮ সালে যেসব নমুনা নেয়া ছিল, সেগুলোর ৫০ শতাংশের মধ্যেও ‘সিডি৪+’ নামের ‘টি-সেল’ পাওয়া গেছে।
বিজ্ঞানীরা বলছেন, যাদের শরীরে এই ‘টি-সেল’ আগে থেকেই আছে, তারা করোনা মোকাবেলার ক্ষেত্রে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে।

Immune warriors known as T cells help us fight some viruses, but their importance for battling SARS-CoV-2, the virus that causes COVID-19, has been unclear. Now, two studies reveal infected people harbor T cells that target the virus—and may help them recover. Both studies also found some people never infected with SARS-CoV-2 have these cellular defenses, most likely because they were previously infected with other coronaviruses.

“This is encouraging data,” says virologist Angela Rasmussen of Columbia University. Although the studies don’t clarify whether people who clear a SARS-CoV-2 infection can ward off the virus in the future, both identified strong T cell responses to it, which “bodes well for the development of long-term protective immunity,” Rasmussen says. The findings could also help researchers create better vaccines.

Check Also

বাংলাদেশে চীনের ট্রায়ালের সূত্র ধরে হতে পারে ভ্যাকসিন উৎপাদন

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধী হিসেবে চীনে চলমান ভ্যাকসিন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *