Clash of Clans (COC) ক্ল্যাশ অব ক্ল্যানস

ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস (Clash of Clans) হলো একটি বিনামূল্যের অনলাইন ভিত্তিক ভিডিও গেম; তবে টাকা বা ডলার খরচ করে রত্ন বা Gems ক্রয়ের মাধ্যমে গেমের Level বা ধাপ দ্রুত উন্নয়ন করা যায়।

২০১২ সালে সুপারসেল এই গেমটি তৈরি করে। ফিনল্যান্ডের হেলসিঙ্কিতে অবস্থিত সুপারসেল (Supercell) এর সদর দপ্তর। Clash of Clans (ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস) ২০১২ সালের ২ আগস্ট আইওএস প্লাটফর্মে মুক্তি দেওয়া হয়।

২০১৩ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মে কানাডা ও ফিনল্যান্ডে মুক্তি দেওয়া হয় এবং পরবর্তীতে ২০১৩ সালের ৭ অক্টোবর গুগল প্লে স্টোরে আন্তর্জাতিকভাবে COC গেমটি মুক্তি দেওয়া হয়।

এটি অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি গেম। বর্তমানে এই গেমটি গুগল প্লে এর সর্বোচ্চ ডাউনলোড হওয়া গেমের তালিকায় ৯৬ তম অবস্থানে রয়েছে। এছাড়াও এটি এ পর্যন্ত ২য় সর্বোচ্চ আয় করা গেম, প্রতিদিন এই গেম থেকে Supercell প্রায় এক মিলিয়ন ডলার আয় করে।

Clash of Clans-ক্ল্যাশ অব ক্ল্যানস

নির্মাতাসুপারসেল (Supercell)
প্রকাশকসুপারসেল (Supercell)
প্লাটফর্মআইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড
মুক্তির তারিখআগস্ট ২, ২০১২ ও অক্টোবর ৭, ২০১৩
ধরণকৌশল
কার্যপদ্ধতিমাল্টিপ্লেয়ার অনলাইন গেম

খেলা

Clash of Clans (COC) মূলত একটি কৌশলগত গেম। খেলার শুরুতেই খেলোয়াড় একটি গ্রাম (Village) পায়। গ্রামে বিভিন্ন ধরনের ঘরসহ বিভিন্ন স্থাপনা থাকে।

গ্রামের মূল অংশটি হলো “টাউনহল (TownHall বা TH)”। এটির উন্নয়ন করালে বিভিন্ন সুবিধা খুলে যায়। টাউন হল এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ১৩ ধাপ (13 Level) পর্যন্ত উন্নীত করা যেতে পারে।

খেলোয়াড়রা অন্য খেলোয়াড়দের গ্রামকে আক্রমণ করে স্বর্ণ, এলিক্সার ও ডার্ক এলিক্সার অর্জন করতে পারে। এছাড়াও একাধিক খেলোয়াড় একসাথে হয়ে (সর্বোচ্চ ৫০ জনবিশিষ্ট) দল গঠন করতে পারে, যাকে ক্ল্যান (Clan) বলা হয়।

একটি ক্ল্যানের সদস্যরা (নূন্যতমপক্ষে ৫ জন) অন্য ক্ল্যানের সদস্যদের গ্রামে আক্রমণ (Attack) করে ক্ল্যান যুদ্ধ করতে পারে; যার ফলাফলের প্রভাব যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী সকল খেলোয়াড়রাই ভোগ করে।

এই ক্ল্যান যুদ্ধকেই ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস গেমটির জনপ্রিয় হওয়ার প্রধান কারণ হিসেবে বিবেচিত করা হয়। এছাড়াও ক্ল্যানের সদস্যরা নিজেদের মধ্যে আলাপচারিতা, বন্ধুত্বপূর্ণ চ্যালেঞ্জ ও সৈন্য প্রদান করতে পারেন।

এসব ক্ল্যানের প্রধান থাকেন একজন নেতা বা Leader; যিনি তার ক্ল্যানের সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী। নেতা বা Leader ছাড়াও তুলনামূলক সীমিত ক্ষমতা নিয়ে যথাক্রমে সহনেতা

(Co-Leader), অগ্রজ (Elder) ও সদস্য (Member) থাকে। খেলোয়াড়রা ইচ্ছা করলেই এসব ক্ল্যান পরিবর্তন করে যেকোন ক্ল্যানে যেতে পারে অথবা নতুন ক্ল্যান তৈরি করতে পারে।

এসব ক্ল্যানের প্রধান থাকেন একজন নেতা বা Leader; যিনি তার ক্ল্যানের সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী। নেতা বা Leader ছাড়াও তুলনামূলক সীমিত ক্ষমতা নিয়ে যথাক্রমে সহনেতা

(Co-Leader), অগ্রজ (Elder) ও সদস্য (Member) থাকে। খেলোয়াড়রা ইচ্ছা করলেই এসব ক্ল্যান পরিবর্তন করে যেকোন ক্ল্যানে যেতে পারে অথবা নতুন ক্ল্যান তৈরি করতে পারে।

সম্পদ: এই খেলার সম্পদসমূহ হলো: রত্ন (Gems), স্বর্ণ (Gold), এলিক্সর (Elixir) এবং ডার্ক এলিক্সর (Dark Elixir)।

রত্ন (Gems)

নতুন খেলোয়াড়দের ৫০০ রত্ন (Gems) বিনামূল্যে দেওয়া হয়। এছাড়াও বিভিন্ন ইভেন্ট সম্পন্ন করলে অথবা গ্রামের Obstacles যেমন: ঝোপ, গাছ, পাথর ইত্যাদি সরালেও বিভিন্ন রত্ন (Gems) উপহার দেওয়া হয়।

এটিই একমাত্র এ গেমের প্রধান সম্পদ। Gems দিয়ে অন্যান্য যেকোনো সম্পদ ক্রয় করা বা কোনো কিছুর (Upgrade) দ্রুত গতিতে করা যায়। এটি দিয়ে “বিল্ডারের হাট (Builder’s Hut)” বসানো যায়, যা গ্রামের (Village) উন্নয়নে সহায়তা করে।

স্বর্ণ (Gold)

স্বর্ণ (Gold) সাধারণত স্বর্ণ (Gold) সংগ্রহকারী ও অন্যদের আক্রমণ করে অর্জন করা যায়। এটি নির্দিষ্ট কিছু অস্ত্র, স্থাপনা, সৌন্দর্যবর্ধক জিনিস ক্রয় করতে ও সেগুলোর উন্নতিসাধন অর্থাৎ Upgrade করতে ব্যবহার করা হয়।

এছাড়া স্বর্ণ মাইন (Gold Mine) নামে একটি মেশিন আছে যার মাধ্যমে স্বর্ণ (Gold) সংগ্রহ করে তা স্বর্ণ ভাণ্ডারে (Gold Storage) সংগ্রহ করে রাখতে হয়। প্রতিরক্ষা ভবনগুলি এবং এলিক্সর সংগ্রহকারী (Elixir Collector), এলিক্সর ভাণ্ডার (Elixir Storage) আপগ্রেডের জন্য ব্যবহার করা হয়।

এলিক্সার (Elixir)

এলিক্সার সংগ্রহকারী (Elixir Collector) এরং অন্য কাউকে আক্রমণ (Attack) করার সাহায্যে অর্জন করা যায়। এলিক্সার দিয়ে সৈন্যদের (Troops) ল্যাবরেটরি তে (Laboratory) রিসার্চ (Research) ও ক্ষমতা বৃদ্ধি (Power), নির্দিষ্ট কাঠামোর উন্নয়ন (Upgrade) এবং বিভিন্ন সরঞ্জাম ক্রয় করা যায়।

ডার্ক এলিক্সার (Dark Elixir)

সাধারণত এই এলিক্সার মূল্যবান ও দুষ্প্রাপ্য।এটি ব্যবহার করে বিশেষ সৈন্যদের (Troops) ক্রয় ও তাদের উন্নতিসাধনে ব্যবহার করা হয়।

এটি দিয়ে বিশেষ হিরো (Hero) ক্রয় করা যায়। এটি ড্রিল এর মাধ্যমে উত্তোলন করা হয় এবং Attack বা আক্রমনের মাধ্যমেও অর্জন করা যায়।

ক্ল্যান (Clan)

ক্ল্যান এ যুক্ত হতে একজন খেলোয়াড়কে আগে তার গোত্র প্রাসাদ (Clan Castle) তৈরি করতে হয়। একাধিক খেলোয়াড় মিলিত হয়ে গোত্র (Clan) গঠিত হয়। একটি গোত্রে (Clan) সর্বোচ্চ ৫০ জন খেলোয়াড় যুক্ত (Join) হতে পারেন।

তারা গোত্রীয় যুদ্ধের মাধ্যমে তাদের গোত্রের উন্নয়ন করেন। গোত্রের সদস্যদের নিজেদের আলাপ আলোচনার জন্য চ্যাটরুম রয়েছে। তাছাড়া তারা একে অপরকে সীমিতসংখ্যক সৈন্য (Troops) দান (Donate) করতে পারে। ক্ল্যান যুদ্ধের মধ্য দিয়ে এক্স পি সংগ্রহ করে ক্ল্যান এর লেভেল বাড়ানো যায়। আর লেভেল বাড়লে নতুন নতুন অনেক সুযোগ-সুবিধা যুক্ত হয়।

ক্ল্যান যুদ্ধ (Clan War)

Clan War হলো ২টি গোত্রের মধ্যে সংঘটিত যুদ্ধ। ক্ল্যান যুদ্ধ (Clan War) শুরু করার জন্য ক্ল্যান এর নেতা বা সহনেতাদের মধ্যে একজন অনুসন্ধান করেন। সঠিক প্রতিদ্বন্দ্বী পাওয়া গেলে ২৩ ঘণ্টা প্রস্তুতি দিবস (Preparation Day) এবং পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা আক্রমণের (Attack) জন্য নির্ধারিত থাকে।

Clans যুদ্ধ ৫ বনাম ৫, ১০ বনাম ১০, ১৫ বনাম ১৫, ২০ বনাম ২০, ২৫ বনাম ২৫, ৩০ বনাম ৩০, ৪০ বনাম ৪০, ৫০ বনাম ৫০ হয়ে থাকে। এতে প্রত্যেক খেলোয়াড় ২টি করে আক্রমণ (Attack) করার সুযোগ থাকে।

ক্ল্যানের সকলের আক্রমণে পাওয়া মোট তারকা (Star) এবং সামগ্রিক ধ্বংসের পরিমাণের উপর বিজয়ী দল নির্ধারিত হয়ে থাকে। বিজয়ী দলের যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী সদস্যরা যার যার আক্রমণের পরিপ্রেক্ষিতে নির্দিষ্ট পরিমাণ সম্পদ [স্বর্ণ (Gold), এলিক্সার (Elixir) ও ডার্ক এলিক্সার (Dark Elixir)] পেয়ে থাকে।

সৈন্যদের তালিকা

হিরোসমূহ

> বারবারিয়ান কিং – Barbarian King (ডার্ক এলিক্সার হিরো)

> আর্চার কুইন – Archer Queen (ডার্ক এলিক্সার হিরো)

> গ্র্যান্ড ওয়ারডেন – Grand Warden (এলিক্সার হিরো)

> রয়েল চেম্পিয়ন – Royal Champion (ডার্ক এলিক্সার হিরো)

> বাটল মেশিন – Battle Machine (Builder Base)

এলিক্সর দিয়ে তৈরি সৈন্যদের তালিকা

> বারবারিয়ান – Barbarian (ব্যারাক লেভেল-১

> আর্চার – Archer (ব্যারাক লেভেল-২)

> জায়ান্ট – Giant (ব্যারাক লেভেল-৩)

> জায়ান্ট স্কেলিটন (হোলোয়িন ইভেন্ট)

> গবলিন – Goblin (ব্যারাক লেভেল-৪)

> ওয়াল ব্রেকার – Wall Breaker (ব্যারাক লেভেল-৫)

> বেলুন – Balloon (ব্যারাক লেভেল-৬)

> উইজার্ড – Wizard (ব্যারাক লেভেল-৭)

আইস উইজার্ড (ক্রিসমাস ইভেন্ট)

> হীলার – Healer (ব্যারাক লেভেল-৮)

> ড্রাগন – Dragon (ব্যারাক লেভেল-৯)

> পেক্কা – P.E.K.K.A (ব্যারাক লেভেল-১০)

> বেবি ড্রাগন – Baby Dragon (ব্যারাক লেভেল-১১)

> মাইনার – Miner (ব্যারাক লেভেল-১২)

> ইলেক্ট্রা ড্রাগন – Electro Dragon (ব্যারাক লেভেল-১৩)

> ইয়াতি – Yeti (ব্যারাক লেভেল-১৪)

ডার্ক এলিক্সর দিয়ে তৈরি সৈন্যদের তালিকা

> মিনিয়ন – Minion (ডার্ক ব্যারাক লেভেল-১)

> হগ রাইডার – Hog Rider (ডার্ক ব্যারাক লেভেল-২)

> ভ্যালক্যায়ার – Valkyrie (ডার্ক ব্যারাক লেভেল-৩)

> গোলেম ও গোলেমাইট – Golem (ডার্ক ব্যারাক লেভেল-৪)

> উইচ ও স্কেলিটন – Witch (ডার্ক ব্যারাক লেভেল-৫)

> লাভা হাউন্ড ও লাভা পাপ – Lava Hound (ডার্ক ব্যারাক লেভেল-৬)

> বোলার – Bowler (ডার্ক ব্যারাক লেভেল-৭)

> আইস গোলেম – Ice Golem (ডার্ক ব্যারাক লেভেল-৮)

> হেড হান্টার – Headhunter (ডার্ক ব্যারাক লেভেল-৯)

Siege Machines তৈরিকৃত সৈন্যদের তালিকা

> ওয়াল র‌্যাকার – Wall Wrecker

> বাটল ব্লিম্প – Battle Blimp

> স্টোন স্ল্যামার – Stone Slammer

> সেইজ ব্যারাকস – Siege Barracks

এলিক্সর দিয়ে তৈরি মিশ্রণ/ঔষুধ (স্পেল) এর তালিকা

> লাইটনিং – Lightning Spell (বজ্রপাত)

> হিলিং – Healing Spell (পূনঃজীবন প্রদানকারী)

> রেজ – Rage Spell (দ্রুতচারী)

> জাম্প – Jump Spell (দেয়াল অতিক্রমকারী)

> ফ্রিজ – Freeze Spell (জমা

Check Also

সাপে কামড়ানোর লক্ষন ও  সাপ কামড়ালে করনীয়

সাপ কে ভয় পাই না এমন মানুষ খুব কম আছে। পৃথিবীতে পতিনিয়ত অনেক মানুষ মারা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *