প্রাথমিকে নিয়োগ হবে ৪০ হাজার শিক্ষক

প্রাক-প্রাথমিক ও প্রাথমিকে বড় ধরনের নিয়োগ হবে। সারা দেশের স্কুলগুলোতে প্রায় ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। কোভিড ১৯-এর প্রাদুর্ভাব কিছুটা স্বাভাবিক হলে এ নিয়োগ কার্যক্রম শুরু হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আকরাম আল হোসেন।

 

রোববার রাতে তিনি বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বড় আকারের নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করতে এরই মধ্যে শিক্ষা অধিদফতরকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

 

সচিব জানান, প্রাক-প্রাথমিকে ভর্তিতে শিশুদের বয়স ৪ ও মেয়াদকাল ২ বছর করা হয়েছে। এ কারণে শিক্ষক দরকার হবে। সারা দেশে এ স্তরে ২৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। একই সঙ্গে দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রায় ১৪ হাজার সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য। এসব বিদ্যালয়ে নতুন করে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।

 

সব মিলিয়ে ৪০ হাজার শিক্ষক দরকার হবে।প্রাথমিকের ২৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগের প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় পাস হয়েছে জানিয়ে আকরাম হোসেন বলেন, প্রাক-প্রাথমিক স্তরে নতুন ২৬ হাজার শিক্ষকের পদ সৃজন করতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়।

 

সেই প্রস্তাব সচিব কমিটি অনুমোদন দিয়েছে। কেবিনেট সভায় এটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। যেহেতু প্রতিটি বিদ্যালয়ে একজন করে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষকের পদ সৃজন করা হয়েছে, তাই দ্রুত সময়ের মধ্যে শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হবে। পর্যায়ক্রমে দেশের ৬৫ হাজার ৬২০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ স্তরের শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।

 

সেই সঙ্গে দেশের সব বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষকের শূন্য পদগুলো পূরণ করা হবে। করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে আগামী সেপ্টেম্বরে এ নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হতে পারে বলেও জানান সচিব।

সূত্র: যুগান্তর

 

Check Also

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষার বাংলা প্রস্তুতি-বাচ্য

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষার বাংলা প্রস্তুতি বাচ্য বাচ্য: বাক্যের বিভিন্ন ধরনের প্রকাশ ভঙ্গিকে বলা হয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *